chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

টিপু ও প্রীতি হত্যার শুটার গ্রেফতার

ডেস্ক নিউজ: রাজধানীর শাহজাহানপুরে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপু ও কলেজছাত্রী সামিয়া প্রীতি হত্যাকাণ্ডে জড়িত শুটারকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।সেই শুটারের নাম মাসুম মোহাম্মদ আকাশ। 

রবিবার (২৭ মার্চ) দুপুরে মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিএমপি’র (গোয়েন্দা) অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

মাসুম মোহাম্মদ আকাশ চাঁদপুরের মতলব উপজেলার কাইশকানি এলাকার মোবারক হোসেনের ছেলে। রাজধানীর পশ্চিম মাদারটেকের ৬০/১৫ বাসায় পরিবার নিয়ে থাকেন তিনি।  তার নামে ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন থানায় হত্যাসহ চারটি মামলা রয়েছে।

হাফিজ আক্তার বলেন, ঘটনার ৫ দিন আগে মাসুমকে কিলিং মিশনে দায়িত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু চুক্তির তিন দিনের মাথায় সে চূড়ান্ত মিশন সফল করার অভিপ্রায়ে টিপুকে অনুসরণ করে। তারই অংশ হিসেবে তাকে এলোপাথাড়ি গুলি করে। তবে তাকে কেউ ভাড়া করেছিল কি-না বা কত টাকায় কাজ করেছে, পাশাপাশি অস্ত্রটি কোথায় তা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়নি।

তিনি বলেন, ঘটনার দিন ঢাকা থেকে জয়পুরহাটে চলে যান মাসুম। সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। তাতে ব্যর্থ হয়ে পরদিন বগুড়ায় চলে যান মাসুম। পরে বগুড়া জেলা পুলিশের সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। মাসুম মনে করেছিলেন তিনি ধরা পড়বেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তার সহযোগীদের অর্থাৎ এ ঘটনার পেছনে যারা জড়িত, এবার তাদের গ্রেফতার করা হবে। এছাড়া মোটরসাইকেল ও অস্ত্রও উদ্ধার করা হবে।’

উল্লেখ্য, ২৪ মার্চ রাত সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরে ইসলামী ব্যাংকের পাশে বাটার শো-রুমের সামনে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপুকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসময় গাড়ির পাশে রিকশায় থাকা সামিয়া আফরান প্রীতি (১৯) নামে এক কলেজছাত্রীও নিহত হন। এছাড়া টিপুর গাড়িচালক মুন্না গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের পর ওইদিন রাতেই শাহজাহানপুর থানায় নিহত টিপুর স্ত্রী ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সংরক্ষিত কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম ডলি বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। এতে অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়।

নচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Leave A Reply

Your email address will not be published.