chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

মা-মেয়ের লাশ মিলল বাড়ির উঠানে

জেলা-উপজেলা ডেস্ক : নিজ বাড়ির উঠান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে মা লুৎফা বেগম (৪৫) ও মেয়ে চাঁদনী বেগম (৭)র নিথর মরদেহ। আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেল ৪টায় নোয়াখালীর হাতিয়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড গুল্লাখালি গ্রাম থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ দুটি নোয়াখালী জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। নিহতরা গুল্লাখালী গ্রামের প্রবাসী রবিউল হকের স্ত্রী ও মেয়ে।

জানা গেছে, আজ রবিবার দুপুর ২টার দিকে লুৎফা বেগমের বড় মেয়ে নাদিয়া বেগম (২৫) বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। তিনি এসে দেখেন মা ও বোন উঠানে অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে।

পরে তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে দেখেন দুজনই মৃত। এ সংবাদ পেয়ে হাতিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে বিকেল ৪টার দিকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে।

নাদিয়া বেগম বলেন, আমি স্বামীর কর্মস্থল নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় যাওয়ার জন্য বের হই। মা-বোনকে একনজর দেখার জন্য বাবার বাড়িতে যাই।

বাড়িতে গিয়ে দেখি দুজনই ঘরের উত্তর পাশে উঠানে পড়ে আছে। জীবিত মনে করে হাসপাতালে নেওয়ার জন্য আমি প্রতিবেশীদের সংবাদ দিলে তারা এসে দেখেন দুজনই মৃত।

হাতিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কাঞ্চন কান্তি দাস বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাদের মৃত্যুর কারণ তাৎক্ষণিক জানা যায়নি। তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

চখ/আর এস

এই বিভাগের আরও খবর
Leave A Reply

Your email address will not be published.