chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ ভিত্তিহীন: মোছলেম

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ ওঠার পর বোয়ালখালীর সাংসদ মোছলেম উদ্দীন আহমেদ বিষয়টিকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, কোনো অন্যায় কাজে সঙ্গে আমার সংশ্লিষ্টতা নেই। তবে কোনো ধরনের অন্যায় করে থাকলে শাস্তি মাথা পেতে  নিবেন বলে জানান তিনি।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি  এসব কথা বলেন।

সাংসদ মোছলেম বলেন, আমি মানুষের কল্যাণে রাজনীতি করি। আমার দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে কোনো দিন অন্যায়ের সাথে আপোষ করিনি। ইউপি নির্বাচনে মনোনয়ন পাইয়ে দিতে আমার নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে যে পোস্ট দেওয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। আমার নাম ব্যবহার করে কেউ পোস্ট করলে তার দায় আমি নিব না। আমি মানুষ, রাজনীতি করতে গিয়ে চলার পথে ভুল-ত্রুটি হতেই পারে। তবে এখন যে অভিযোগ উঠেছে, এ ধরনের কোনো অন্যায় কাজ আমি করিনি।

গত ৬ জানুয়ারি চট্টগ্রাম জেলা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক কামাল উদ্দিন মনোনয়নের বাণিজ্য বিষয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেন। ওই পোস্টে বোয়ালখালীর সাংসদ ও  সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুসেইন কবিরকে ১৫ লাখ টাকার চেক দিয়েছেন বলে জানায়।

এ ঘটনার পর সাংসদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ তুলে গত সোমবার (১০ জানুয়ারি) ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে  মামলা করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে পিবিআই মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিবে।

চট্টগ্রাম-৮ আসনের এই সাংসদ বলেন, কেন্দ্রীয় নেতারা মনোনয়নের বিষয়টা দেখেন। এখানে আমাদের কিছু করার নেই। আমরা শুধুমাত্র তালিকা পাঠাই। তিনজনের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়। কেন্দ্রে নাম পাঠানোর আগে ৮ উপজেলায় তৃণমূল পর্যায়ে সভা করেছি। প্রত্যেক প্রার্থীর বক্তব্য নিয়েছি, শপথ করানো হয়েছে। মনোনয়ন না  পেলেও দলের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবে, আমাদের কাছে ভিডিও রয়েছে। জেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর গ্রহণ করা হয়েছিল। সেই তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। পটিয়ার চার জনের নাম কেন্দ্রে পাঠানো হলেও তাদের একজনকেও মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। আমাদের মনোনয়ন দেওয়ার কোনোও সুযোগ নেই।

সংবাদ সম্মেলনে, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরকে/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...