chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

জামিনে বেরিয়ে এসে ফের খুন!

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক: হত্যা মামলায় কারাভোগ করেছেন এক বছর। জামিনে বেরিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যা মামলায় সাক্ষী না দিতে শাসিয়ে আসছিলেন। কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায় করে করে বসলেন আরেকটি খুন।

ইমরান (৩৩) নামে ওই আসামিকে মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে জোরারগঞ্জ থানার ইছাখালী ইকোনোমিক জোনের ভাবীর মোড় এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব)। সে নগরীর ইপিজেড থানার দুই নম্বর মাইলের মাথার মহব্বদ মুন্সীর বাড়ির মৃত আবুল বশরের ছেলে।

র‌্যাব জানায়, পারিবারিক বিরোধের জেরে ২০১৯ সালে ১১ এপ্রিল নগরের ইপিজেড এলাকায় এরশাদ নামে এক ব্যক্তি ছোরার আঘাতে খুন হন। এ ঘটনায় মো. আরমান (৩৫), ইরান(৩৩) ও ইমতিয়াজকে (৩২) অভিযুক্ত করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়। ওই মামলায় আসামিরা এক বছর কারাভোগ শেষে বেরিয়ে আসেন। জামিনে বের হয়ে আসার পর থেকে আসামিরা এরশাদের মামলায় কবির আহমেদ ও তার ছেলে ওমর ফারুককে সাক্ষী না দেওয়ার জন্য হুমকি দিয়ে আসছিল।

র‌্যাব আরও জানায়, হুমকিতে কাজ না হওয়ায় গেল ১ জানুয়ারি আসামিরা মামলার বাদির উঠানে এসে লোহার শাবল, বাঁশের লাঠি দিয়ে লায়লা বেগম ও বাদীর ছেলেকে হামলা করে। হামলায় গত ৬ জানুয়ারি বিকেলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে লায়লা মারা যান।

র‌্যাব-৭ এর সহকারি পরিচালক (গণমাধ্যম) মো. নূরুল আবছার এক বিবৃতিতে অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনার পর থেকে ইরান পলাতক ছিলেন। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তার অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর র‌্যাবের একটি চৌকস টিম অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করে। ইরানের বিরুদ্ধে মহানগরের বিভিন্ন থানাসহ চারটি মামলা রয়েছে বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

আরকে/এমকে/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...