chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

সাকিবের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স, মধ্যাঞ্চলের জয়

ksrm

ক্রীড়া ডেস্ক: ধীরগতির ব্যাটিংয়ে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের ইনিংস থামল ১৭৭ রানেই। তবে অল্পপুঁজি নিয়েও অনেক সময় যে ম্যাচ জেতা যায় সেটা দেখালেন মধ্যাঞ্চলের বোলিং ডিপার্টমেন্ট। ওয়ানডে ফরম্যাটের স্বাধীনতা কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ২২ রানের জয় পেয়েছে মধ্যাঞ্চল। অনেকদিন পর ক্রিকেটে ফিরে সাকিব আল হাসান দেখিয়েছেন অলরাউন্ড পারফরম্যান্স।

পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের পর থেকে ক্রিকেটের বাইরে ছিলেন সাকিব। নিউজিল্যান্ড সিরিজ থেকে ছুটি নিয়ে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে যুক্তরাষ্ট্র গিয়েছিলেন। ওয়ানডে ফরম্যাটের বিসিএল খেলতে ছুটি কাটিয়ে ফিরেছেন সাকিব। ফিরেই ব্যাট-বল দুই বিভাগেই দলের জয়ে অবদান রাখলেন। ৫৮ বলে তার ৩৫ রানের ইনিংসটি দলের ১৭৭ রানের সংগ্রহে বড় ভূমিকা রেখেছে। পরে বল হাতে ১০ ওভার বোলিং করে ২ মেডেনসহ মাত্র ২৪ রান খরচ করে নিয়েছেন দুই উইকেট।

এদিন সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে আজ ছিল বোলারদের দাপট। পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ঠিকভাবে এগুতে পারেনি মধ্যাঞ্চল। দলীয় ৩৬ রানের মাথায় ওপেনার সৌম্য সরকার ফেরেন ১৩ রান করে। তিনে নামা আব্দুল মজিদ করতে পেরেছেন কেবল ৮ রান। আব্দুল মজিদ ফেরার পর পরের বলেই অপর ওপেনার মিজানুর রহমানকে (৩৬) ফেরান আলাউদ্দিন বাবু।

তারপর মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন সাকিব। মিঠুন ৩৭ বলে ৩৭ রান করে দলীয় ১২৩ রান করে ফিরলে এই জুটি ভাঙে। কিছুক্ষণ পর ৩৬ রান করে ফেরেন সাকিবও। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (১৭), জাকের আলিরা (১৫) বড় স্কোর গড়তে না পারলে দুইশর আগেই থেমে যায় মধ্যাঞ্চল।

পূর্বাঞ্চলের হয়ে রেজাউর রহমান রাজা ৯ ওভারে ২১ রান খরচ করে নিয়েছেন তিন উইকেট। অভিজ্ঞ রুবেল হোসেন ৩ উইকেট নিতে খরচ করেছেন ৫১ রান।

পরে জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় পূর্বাঞ্চল। প্রথম ওভারেই ওপেনার মোহাম্মদ আশরাফুলকে হারায় দলটি। তবে এরপর ইমরুল কায়েস ও রনি তালুকদাদের ব্যাটে বেশ ভালোই আগাচ্ছিল দলটি। এই যাত্রা অবশ্য খুব বেশি বড় হয়নি। মাত্র ১৮ রানের ব্যবধানে তিন উইকেট তুলে নিয়ে রোমাঞ্চ ফেরান মোসাদ্দেক হোসেন, সাকিব আল হাসান, হাসান মুরাদরা। বাকি সময়ে শুধু নাদিফ চৌধুরীই যা একটু দাঁড়াতে পেরেছে।

নাদিফ করেন ২৮ রান। রনি তালুকদার ফিরেছেন ৩৮ রান করেন। ইরফান শুক্কুর ৩১ ও ইমরুল কায়েস ২৫ রান করেছেন। শেষ দিকে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রানে গুটিয়ে যায় পূর্বাঞ্চল। যাতে ২২ রানের জয় নিশ্চিত হয় মধ্যাঞ্চলের।

মধ্যাঞ্চলের বাকি বোলারদের মধ্যে হাসান মুরাদ ১০ ওভারে ২৮ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। সৌম্য সরকার ২ ওভারে ৪ রান খরচায় নিয়েছেন দুই উইকেট। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ১টা উইকেট পেলেও ১০ ওভারে খরচ করেছেন মাত্র ১৩ রান।

জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...