chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

চট্টগ্রামে কমছে তাপমাত্রা, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বইছে শৈত্যপ্রবাহ

ksrm

চট্টলা ডেস্ক : পৌষের প্রথম সপ্তাহেই শীতে কাঁপন ধরেছে। চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ওপর দিয়ে বইছে শৈত্যপ্রবাহ, আট জেলার তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে। এ ছাড়াও আরও ৮ জেলার তাপমাত্রা এখন ১০-এর ঘরে।

আজ সোমবার (২০ ডিসেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়, ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ শেক হারুনর রশিদ বলেন, চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গড়ে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ দশমিক ৬ থেকে ৭ ডিগ্রিতে আছে। বেলা ১ টায় এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত চট্টগ্রামের তাপমাত্রা ছির ২২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, নওগাঁ, পঞ্চগড়, কুড়িগ্রাম, যশোর, কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা এবং বরিশাল অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্য প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। চলমান শৈত্য প্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে এবং তা বিস্তারলাভ করতে পারে।

পূর্বাভাস অনুযায়ী, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ এলাকায় বিরাজমান। দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং বিষুবীয় ভারত মহাসাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে উত্তর সুমাত্রা উপকূলের অদূরে দক্ষিণ আন্দামান সাগরে অবস্থান করছে।
এর প্রভাবে সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে। দেশের দক্ষিণাঞ্চলের রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং অন্য এলাকায় তা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সাধারণত বড় এলাকাজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। আর তাপমাত্রা ৬-৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি এবং তাপমাত্রা ৮-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলে

আজ চুয়াডাঙ্গায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭, যা গতকাল ছিল তেতুলিয়ায় ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ১০ নিচে থাকা জেলাগুলো হচ্ছে, রাজশাহী, ঈশ্বরদী, বদলগাছি, তেতুলিয়া, রাজারহাট, যশোর এবং বরিশাল। আর ১০ এর ঘরে থাকা জেলাগুলো হচ্ছে টাঙ্গাইল, মাদারিপুর, গোপালগঞ্জ, তাড়াশ, ডিমলা, মোংলা, সাতক্ষীরা ও কুমারখালি। এছারা ঢাকায় গতকাল ছিল ১৭, আজ ১৪ দশমিক ২, ময়মনসিংহে ছিল ১৫, আজ ১৩ দশমিক ৩, চট্টগ্রামে ছিল ১৫ দশমিক ৭, আজ ১৬ দশমিক ৪, সিলেটে ছিল ১৪ দশমিক ৪, আজ ১৪ দশমিক ৪ রাজশাহীতে ছিল ১২ দশমিক ৮, আজ ৯ দশমিক ৪, রংপুরে ছিল ১৩ দশমিক ৫, আজ ১১ দশমিক ৪ খুলনায় ছিল১৫ দশমিক ৩, আজ ১১ দশমিক ৬ এবং বরিশালে ছিল ১৩ দশমিক ৬ আজ ৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এছাড়া ১৩ থেকে ১০ ডিগ্রির মধ্যে আছে রাজশাহী, ঈশ্বরদী, বদলগাছি, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, ডিমলা, রাজারহাট, চুয়াডাঙ্গা, মাদারিপুর, নেত্রকোনা, সীতাকুণ্ড, ফেনী এবং শ্রীমঙ্গলের তাপমাত্রা।

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও এর আশেপাশের এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং এর আশেপাশের এলাকা নিরক্ষীয়া ভারত মহাসাগর এলাকায় লঘুচাপটি অবস্থান করছে । এর প্রভাবে আকাশ অস্থায়ী ভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুদ থাকতে পারে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা কমতে পারে, একই সাথে কমতে পারে দিনের তাপমাত্রাও।

এসএএস/জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...