chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

নির্যাতনে স্ত্রীর মৃত্যু: স্বামী-শ্বাশুড়িসহ তিনজনের নামে মামলা

যৌতুকের বলি

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক: নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকায় যৌতুকের জন্য নির্যাতনে আঁখি নামে এক গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় আটক আঁখির স্বামী আনিসুল ইসলাম, শ্বাশুড়িসহ তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) চান্দগাঁও থানার ওসি মাইনুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মৃত আঁখির ভাই মো. মিজানুর রহমান (২৪) বাদী হয়ে রবিবার রাতে তিনজনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় স্বামী আনিসুল ইসলাম (৩২), শ্বাশুড়ি ফরিদা আক্তার (৫০) ও স্বামীর বড় বোন হামিদা বেগমকে (৩৪) আসামী করা হয়েছে।

পরিবারের অভিযোগ, যৌতুকের জন্য আঁখিকে নির্যাতন করতো আনিসুল। কয়েকদিন আগে প্রচুর মারধর করেন। গতকাল রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে নগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আঁখির মৃত্যু হয়। এরপর হাসপাতালের সামনে থেকে অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করা হয়।মাহমুদা খানম আঁখি চট্টগ্রাম নগরের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। আনিসুল ইসলাম পেশায় আইনজীবী।

আঁখির ভগ্নীপতি আবুল কালাম বলেন, দুই বছর আগে আনিসের সঙ্গে আঁখির বিয়ে হয়। এরপর থেকেই যৌতুকের জন্য তার ওপর নির্যাতন করে আসছিলেন আনিস। এক সপ্তাহ আগেও আঁখিকে মারধর করেন। এতে আঁখি পেটে মারাত্মক আঘাত পান।একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর থেকেই তার চিকিৎসা চলছিল।

পাঁচলাইশ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সাদিকুর রহমান বলেন, আঁখি মারা যাওয়ার পর স্বামী আনিসুলকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্বজনরা। তাকে চান্দগাঁও থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুর রহমান বলেন, এজাহারনামীয় ১ নং আসামী আনিসুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অন্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।

এসএএস/জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...