chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া সন্দেহে একজনকে পিটিয়ে হত্যা

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীর পতেঙ্গা থানা এলাকায় সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ার সন্দেহে আবু তাহের (৪৮) নামে এক ব্যক্তিকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়েছেন আব্দুল জলিল নামে আরেক ব্যক্তি। একদিন পর চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় আবু তাহেরের।

এই ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুল জলিলকে নোয়াখালী থেকে গ্রেফতার করেছে পতেঙ্গা থানা পুলিশ।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) পতেঙ্গা থানার ওসি জাহিদুল কবির বলেন, সাবেক স্ত্রীর সাথে পরকীয়া সন্দেহের বশবর্তী হয়ে গত বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) আবু তাহেরকে তার বাসা হতে ডেকে নিয়ে গিয়ে আব্দুল জলিল আরও কয়েকজনসহ মারধর করে মারাত্মকভাবে জখম করে। এতে আহত আবু তাহেরকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জরুরি বিভাগের চিকিৎসা তাকে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করান। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) দিবারাত ১ টা ৪০ মিনিটে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

ওসি বলেন, এই ঘটনার পর নিহত আবু তাহেরের মেয়ে রাজিয়া সুলতানা বাদী হয়ে আব্দুল জলিলকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন শুক্রবার দুপুরে। এই মামলা অজ্ঞাত আরও দুইজনকে আসামি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে গিয়ে জানতে পারি আসামি আব্দুল জলিলের সাথে তার স্ত্রীর ডিভোর্স হয়ে গেছে। কিন্তু ডিভোর্স হওয়ার পর ওই স্ত্রী আবু তাহেরের পাশ্ববর্তী একটি ভাড়া বাসায় থাকে।

জলিল সন্দেহ করতো তার সাবেক স্ত্রীর সাথে আবু তাহেরের পরকীয়া চলছে। এই সন্দেহে গত বৃহস্পতিবার জলিল আবু তাহেরকে ডেকে নিয়ে মারধর করে। পরে তাহেরের মৃত্যু হয়। ঘটনার পর থেকে আব্দুল জলিল এলাকা ছেড়ে চলে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পতেঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নোয়াখালী জেলার কিল্লার হাট এলাকা থেকে হত্যাকাণ্ডের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।

বাকী আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যহত রয়েছে বলেও জানিয়েছেন ওসি জাহিদুল কবির।

এসএএস/জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...