chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

জেএসএস নেতা পুশৈ অপহরণের পর খুন!

ksrm

বান্দরবান ডেস্ক : বান্দরবানে পুশৈ থোয়াই মারমা (৩৫) নামে জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)এর এক নেতাকে অপহরণের পর খুন করেছে পাহাড়ের অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।

আজ সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বান্দরবান-রাঙামাটি সড়কের আমতলী পাড়া এলাকার মাটির নিচ থেকে এ নেতার লাশ উদ্ধার করেন সদর থানা পুলিশ।

নিহত পুশৈ থোয়াই মারমা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাবেক জেলা সভাপতি ও আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)এর বর্তমান সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার (১২ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে অপহরণ হয় পুশৈ থোয়াই মারমা। পাহাড়ের অস্ত্রধারী একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা চেমী ডলু পাড়ায় হানা দিয়ে পুশৈ’র বাড়ি থেকে তাকে তুলে নিয়ে যায়।

পরে তাকে হত্যা করে আমতলী পাড়া এলাকায় তার লাশ মাটিতে পুঁতে রাখেন। এ ঘটনার পর স্থানীয়দের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে।

লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, খবর পেয়ে মাটির নিচে পুঁতে রাখা লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৯৭ সালের ২’রা ডিসেম্বর সরকারের সাথে শান্তি চুক্তি হলেও আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) এর মধ্যে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে আধিপত্য বিস্তারের প্রচেষ্টায় দীর্ঘ দুই যোগ ধরে পাহাড়ে খুনাকুনি,পার্বত্য অঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি’, সহ বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে লিপ্ত রয়েছে।

চখ/আর এস

Loading...