chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

ওমিক্রন: যুক্তরাজ্যে বড় পরিসরে হবেনা বড়দিনের উৎসব

ksrm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের নতুন ধরন শনাক্তের পরই দেশে দেশে তৈরি হয়েছে অচলাবস্থা। বিশেষ করে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ফলে আবারও সব কিছু স্থবির হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন উৎসব-আয়োজনের আকারও কমিয়ে আনা হচ্ছে।

ফলে বড় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে বড় দিনের উৎসবেও। যুক্তরাজ্যের বড় বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বড়দিনের পার্টি ছোট আকারে করার কথা জানিয়েছে। কোম্পানির মধ্যেই বিভাগভিত্তিক হবে এসব পার্টি। খবর আল জাজিরার।

ওমিক্রনের জেরে নতুন করে স্বাস্থ্য ঝুঁকি দেখা দিয়েছে বিভিন্ন দেশে। বড় উৎসবে জনসমাগমের কথা বিবেচনা করেই যুক্তরাজ্যে পার্টি কাট ছাট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কারণ ওমিক্রনের ফলে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

যুক্তরাজ্যের বৃহত্তম কোম্পানি ন্যাটওয়েস্ট, আভিভা ও ডেলয়েট তাদের কর্মীদের জানিয়েছে, পার্টিতে অংশ নেওয়াটা নিজেদের ব্যক্তিগত পছন্দের ওপর নির্ভর করে। কেউ চাইলে পার্টিতে নাও অংশ নিতে পারবেন। এদিকে বড় বড় ইভেন্টের আয়োজকরা মনে করছেন বড়দিনের উৎসবের মাধ্যমে অর্থনীতি পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হবে।

যুক্তরাজ্যের কর্মক্ষেত্রের ৫২ শতাংশ কর্মী ক্রিসমাস অফিস পার্টি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কোভিড টেস্টিং কোম্পানি প্রেনেটিক্স দুই হাজার কর্মীর ওপর একটি সমীক্ষা চালিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে।

যুক্তরাজ্যের বিজ্ঞাপন সংস্থা এস৪ ক্যাপিটালের নির্বাহী চেয়ারম্যান স্যার মার্টিন সোরেল বলেন, করোনার নতুন ধরন শনাক্ত হওয়ার পর গত কয়েকদিনে অসংখ্য গ্রাহক তাদের পার্টি বাতিল করেছে।

ন্যাটওয়েস্ট তাদের প্রায় ৬০ হাজার কর্মীকে পার্টিতে আসার আগে করোনা পরীক্ষার আহ্বান জানিয়েছে। ইনস্যুরেন্স কোম্পানি আভিভাও তাদের কর্মীদের করোনা পরীক্ষার কথা জানিয়েছে। যুক্তরাজ্যের প্রধান বিনিয়োগ ব্যাংকগুলো বড়দিন উপলক্ষে বড় কোনো আয়োজন করবে না বলে জানা গেছে।

যুক্তরাজ্যের বাণিজ্যমন্ত্রী জর্জ ফ্রিম্যান বলেন, যেসব কোম্পানির কর্মী খুবই কম তাদের জন্য ঝুঁকি কম। অন্যদিকে যেসব কোম্পানির শত শত কর্মী রয়েছেন তাদের জন্য বড় পার্টির আয়োজন মঙ্গলজনক হবে না।

যুক্তরাজ্য সরকার জানিয়েছে, ওমিক্রন ছড়িয়ে না পড়লে বড়দিনের পার্টি বাতিল করার প্রয়োজন নেই। সবাইকে করোনার বুস্টার ডোজ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...