chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

টমেটো চুরিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহত ১০

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাঁশখালীর সরল ইউনিয়নে টমেটো চুরির অপবাদে সংঘর্ষে জড়িয়েছে দুই দল গ্রামবাসী। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার  (২ ডিসেম্বর) বিকালে উপজেলার সরল ইউনিয়নের পশ্চিম সরল ২নং ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মোহাম্মদ ইউনুস ও তার ভাই মোহাম্মদ হোসেন এর ২৪ শতক (১২ গন্ডা) জমির মধ্যে টমেটো চাষ করে। এর পাশে স্থানীয় জাফর আহমদের পুত্র মোহাম্মদ আলমগীরের টমেটো চাষের ক্ষেত। ইউনুস ও মোহাম্মদ হোসেন এর ক্ষেত থেকে এক বস্তা টমেটো চুরির অপবাদে এক পক্ষ অপর পক্ষের ওপর হামলা চালায়। এসময় উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়। এসময় গুরুতর আহত উভয় পক্ষের ৭ জনকে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতদের মধ্যে ইসমাইল মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ ইউনুস (৪০), মোহাম্মদ হোসেন(১৮) , মোহাম্মদ জামাল (৩৫), বজল আহমদ (৫৫) ও অপক্ষের মধ্যে স্থানীয় আবু জাফরের স্ত্রী ইসলাম খাতুন (৫০), পুত্র নূর মোহাম্মদ (২৪) ও তার স্ত্রী সুমি আক্তারকে (২২) গুরুতর আহত অবস্থায়  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন মুহাম্মদ ইউনুস বলেন, আমাদের রোপণকৃত টমেটো ক্ষেত থেকে বৃহস্পতিবার মোহাম্মদ আলমগীর এক বস্তা টমেটো চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় আমি খবর পাই। পরবর্তীতে ক্ষেতে গিয়ে আশেপাশে এবং ক্ষেতের মধ্যে খোসা দেখতে পাই। এরপর পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকজন ক্ষেতের মালিক এবং অন্যান্যদের  বিষয়টি জানাই। এরপর আলমগীর আমার ক্ষেতকে টমেটো চুরি কেন করেছে জানতে চাইলে সে ক্ষিপ্ত হয় আমাকে মারধর শুরু করে। পরবর্তীতে তারা পুনরায় এসে আমাদের উপর হামলা চালায়।

অপর পক্ষের জাফর আহমদ বলেন, আমার ছেলেকে টমেটো চুরির অপবাদ দিয়ে ইউনুস ও তার অপরাপর সন্ত্রাসী বাহিনীর সহযোগীতায় আমার বাড়িতে এসে হামলা চালিয়ে আমার স্ত্রী, ছেলে ও পুত্রবধুর ওপরে এলোপাতাড়ি দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জরুরী বিভাগে কর্মরত চিকিৎসক কানিজ ফাতেমা জানান, সরল ইউনিয়নে মারামারির ঘটনায় উভয় পক্ষের ৭জনকে হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

এসএএস/জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...