chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

শিশু অধিকার রক্ষায়, আমাদের সচেতন থাকা লাগবে : মেয়র রেজাউল

ksrm

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, শিশুদের অধিকার রক্ষা ও মৌলিক চাহিদা পূরণে আমাদের সবসময় সচেতন থাকা লাগবে। বৃদ্ধি করা লাগবে কাজের মান।

বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) সকালে নগরীর রেডিসন ব্লু বেভিউ’র মোহনা হলে ইউনিসেফ এর উদ্যোগে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের ওরিয়েন্টেশন সেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেন। চট্টগ্রাম আরবান প্রকল্পের আওতাধীন সমন্বিত সেবা প্রদান মডেলের অধীনে এই প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো.শহীদুল আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউনিসেফ চট্টগ্রাম বিভাগের চিফ অফ ফিল্ড অফিসার মিস মাধুরী ব্যানার্জী। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দীন, আফরোজা কালাম, কাউন্সিলর শহিদুল আলম, মোবারক আলী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, নাজমুল হক ডিউক, অধ্যাপক মো.ইসমাইল, সংরক্ষিত কাউন্সিলর রুমকী সেনগুপ্ত, চসিক সচিব খালেদ মাহমুদ, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সেলিম আকতার চৌধুরী, মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, চসিকের আর্কিটেক্ট আবদুল্লাহ আল ওমর। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার লক্ষ্যে ক্রমাগত এগিয়ে চলছে। এগিয়ে যাওয়ার এই প্রচেষ্টার পিছনে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বিভিন্ন দাতা সংস্থা ও ইউনিসেফসহ বিভিন্ন বহুজাতিক উন্নয়ন সংস্থার অবদান রয়েছে। ২০১৮ সাল থেকে ইউনিসেফ কর্পোরেশনের আওতাধীন ১৭, ১৮, ১০, ২০,ও ৪১ নং ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পুষ্টি, শিশু সুরক্ষা, ওয়াশ এবং উন্নয়ন কার্যক্রমের আওতায় সেবা ও সহায়তামূলক সেবা দিয়ে আসছে। এই কার্যক্রম শুরুর পূর্বে তথ্য যাচাই, গবেষণা করে পরিকল্পনা নেয়া হয়। এরকম পরিকল্পনার মতো সরকারি উদ্যাগের ফলে বাংলাদেশে প্রাথমিক শিক্ষার ক্ষেত্র ৯৫ শতাংশ সাফল্য অর্জিত হলো। এই সাফল্যকে শতভাগে উন্নীত করা সম্ভব। মেয়র ইউনিসেফ এর এই কার্যক্রম ৪১ ওয়ার্ডে বিস্তৃত করার প্রস্তাব করেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ইউনিসেফ এর চিফ অফ ফিল্ড অফিস মিস মাধুরী ব্যানার্জী কর্পোরেশনের নারী ও শিশু বিষয়ক স্ট্যান্ডিং কমিটির কার্যক্রমের সমন্বিত হয়ে কর্ম পরিকল্পনা গ্রহণের ইচ্ছা পোষণ করলে মেয়র রেজাউল তাতে সম্মতি প্রকাশ করেন। মেয়র বলেন আমরা চাই সবার সমন্বিত প্রয়াসে এগিয়ে যেতে। শুরুতে শিশু অধিকার, জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার উপর ৯ মিনিটের একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করেন ফ্লোরা ও হাসান।
এসএএস/নচ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...