chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঐতিহাসিক সিরিজ জয় করলো বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ: পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের টানা তিন ম্যাচে সফরকারী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ঐতিহাসিক সিরিজ জয় পেয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১০ রানের জয় পেয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। যা যেকোনো ফরম্যাটে অজিদের বিপক্ষে টাইগারদের প্রথম সিরিজ জয়।

মিরপুরে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের ৫২ রানের সুবাধে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান জড়ো করে বাংলাদেশ।

রিয়াদের পরে স্বাগতিকদের দলীয় এ সংগ্রহে রয়েছে সাকিব আল হাসানের ২৬ ও আফিফ হোসেন ধ্রুব ১৯ রান। যদিও ইনিংসের শেষ ওভারে হ্যাটট্রিক তুলে নিয়ে অভিষেক রাঙিয়েছেন অজি পেসার নাথান এলিস।

তিনি মাহমুদউল্লাহর পর একে একে ফিরিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান ও শেখ মেহেদীকে। অভিষিক্ত নাথান এলিস ৩৪ রান খরচ করলেও ইনিংসের শেষ ৩ বলে তিন উইকেট শিকার করে ইতিহাসের প্রথম বোলার হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকে গড়েন হ্যাটট্রিকের কীর্তি।

তাছাড়া সফরকারীদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে দুটি করে উইকেট শিকার করেন জশ হ্যাজলউড ও অ্যাডাম জাম্পা।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ধীর শুরু করে অজিরা। জবাবে অজিরা তুলতে পারল ১১৭ রান। তাতে ১০ রানের জয় পেয়ে যায় বাংলাদেশ। আর এই জয়ের মাধ্যমে অজিদের বিপক্ষে যেকোনো ফরম্যাটে ঐতিহাসিক সিরিজ জয়টাও ধরা দিল টাইগারদের হাতে। টানা তিন ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর ঘটনাও এই প্রথম।

অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড ওপেনিংয়ে নেমে নাসুম আহমেদের শিকারে পরিণত হন দলীয় ৮ রানে। এরপর ভাগ্যের স্পর্শে ৬৩ রানের জুটি গড়ে ফেলেন একাদশে সুযোগ পাওয়া ব্যান ম্যাকডারমট ও মিচেল মার্শ।

৭১ রানে তাদের জুটি ভাঙেন সাকিব, ৪১ বলে ৩৫ রান করে বিদায় নেন ম্যাকডারমট। এতে চাপে পড়ে যায় দলটি, যা আরও বেড়ে যায় শরিফুল ইসলাম মইসেস হেনরিকসকে শিকার করলে। ৯৪ রানে শরিফুলের শিকারে পরিণত হন ফর্মে থাকা মার্শ। তার আগে ৪৭ বলে ৫১ রান করে আতঙ্ক ছড়ান বাংলাদেশের বোলিং ইউনিটে।

শেষ ২ ওভারে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল ২৩ রান। মুস্তাফিজুর রহমানের করা ১৯তম ওভারে অজিরা মাত্র ১ রান নিতে সক্ষম হয়। শেখ মেহেদী হাসানের করা শেষ ওভারে ১১ রানের দেখা পায় ওয়েডের দল। হারায় একটি উইকেট। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে সফরকারীদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১১৭ রান।

৪ ওভার বল করে মুস্তাফিজ মাত্র ৯ রান খরচ করেন। ২৯ রানের খরচায় ২ উইকেট শিকার করেন শরিফুল। নাসুম ১৯ ও সাকিব ২২ রানের বিনিময়ে একটি করে উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

টস : বাংলাদেশ

বাংলাদেশ : ১২৭/৯ (২০ ওভার)
রিয়াদ ৫২, সাকিব ২৬, আফিফ ১৯
এলিস ৩৪/৩, হ্যাজলউড ১৬/২, জাম্পা ২৪/২

অস্ট্রেলিয়া : ১১৭/৪ (২০ ওভার)
মার্শ ৫১, ম্যাকডারমট ৩৫, ক্যারি ২০*
শরিফুল ২৯/২, নাসুম ১৯/১, সাকিব ২২/১, মুস্তাফিজ ৯/০

ফল : বাংলাদেশ ১০ রানে জয়ী।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...