chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

হালদা পাড়ে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে ডিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে হাটহাজারীতে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে বরাদ্দকৃত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘর পরিদর্শন করেছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান।

রবিবার (১ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার গুমানমর্দন ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ হালদার তীর ঘেষে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ২৬ পরিবার নিয়ে গড়ে ওঠা আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন তিনি।

এসময় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের পক্ষ হতে আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারী ২৬ পরিবারের মাঝে ত্রাণ এবং শিশুদের চকলেট, চিপসসহ নানা ধরনের উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এস এম জাকারিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নাজমুল আহসান, সিনিয়র সহকারী কমিশনার সুজন চন্দ্ররায়, এনডিসি মো. মাসুদ রানা, হাটহাজারী উপজেলা চেয়ারম্যান এস.এম. রাশেদুল আলম, হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শাহিদুল আলম, হাটহাজারী সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু রায়হান, গুমানমর্দন ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুল হকসহ আরো অনেকে।

পরিদর্শনকালে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মো. মমিনুর রহমান বলেন, দেশের সকল আশ্রয়হীন মানুষের জন্য স্থায়ী আবাস গড়ে দিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তারই ধারাবাহিকতায় মুজিববর্ষকে সামনে রেখে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প বেগবান করা হয়।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ‘আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার উপহার’ এই স্লোগানের তাৎপর্যকে ধারণ করে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন সর্বোচ্চ পেশাদারিত্ব, দক্ষ ব্যবস্থা ও সমন্বয়ের মাধ্যমে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের কাজ শুরু করে। নানাবিধ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে দুই পর্যায়ে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন মোট ২ হাজার ২১৬টি গৃহ নির্মাণ করে তা ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে হস্তান্তর করেন।

পর্যায়ক্রমে দেশের সকল আশ্রয়হীন মানুষ তাদের স্থায়ী আবাস পাবে উল্লেখ করে তিনি আরোও বলেন, হাটহাজারীতে প্রথম পর্যায়ে ১৫টি, দ্বিতীয় পর্যায়ে ১০টি ও বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস কর্তৃক ১টিসহ মোট ২৬টি গৃহ গুমানর্মদনে নির্মাণ করে তা উপারভোগীদেও মাঝে হস্তান্তর করা হয়। যেখানে সুনির্দিষ্ট ডিজাইনে প্রতিটি গৃহে দুটি কক্ষ, ১টি রান্নাঘর ও একটি টয়লেট রয়েছে।

এই আশ্রয়ণ প্রকল্পের ৩০০ মিটার এলাকার মধ্যে বিদ্যালয়, মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দির ও বাজার রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এর আগে জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকারী পরিবারগুলোর খোঁজখবর নেন এবং প্রকল্পের প্রতিটি ঘর ঘুরে দেখেন। পরে বৃক্ষরোপণের মধ্য দিয়ে পরিদর্শন কার্য সমাপ্ত করেন তিনি।

এসএএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...