chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

দেশে রেকর্ড ১৬২৩০ শনাক্ত, মৃত্যু ২৩৭

ডেস্ক নিউজ: দেশে সংক্রমণে আগের পুরনো সব রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড গড়েছে প্রণঘাতী করোনা ভাইরাস। গত ২৪ ঘন্টায় ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ২৩০ জন।

দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে একদিনে এতো বেশি সংক্রমণ আরো কখনো দেখেনি বাংলাদেশ। এর আগে গত সোমবার দেশে ১৫ হাজার ১৯২ ছিলো সর্বোচ্চ সংক্রমণ। গতকাল শনাক্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৯২৫ জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাড়ালো ১২ লাখ ১০ হাজার ৯৮২ জন।

একই সময়ে দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন ২৩৭ জন। এটি এক দিনে তৃতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু। গতকাল মঙ্গলবার ২৫৮ জন মৃত্যুর সংখ্যায় এখন পর্যন্ত দেশে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। তাছাড়া এর আগের দিন সোমবার ২৪৭ জনের মৃত্যুর রেকর্ড হয়েছিল। যা এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

বুধবার (২৮ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার সই করা কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত বিজ্ঞপ্তিতে গত ২৪ ঘণ্টার করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৪৭০ জন মহামারী করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। যা আগের দিনের তুলনায় বেশি। সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা ১২ হাজার ৪৩৯ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছে ১০ লাখ ৩৫ হাজার ৮৮৪ জন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, দেশে প্রাণঘাতী করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাড়াল ২০ হাজার ১৬ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৩৭ জনের মধ্যে ১৪৯ জন পুরুষ এবং বাকী ৮৮ জন নারী। তাদের মধ্যে বাসায় ১৩ জন ও বাকি ২২৪ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

একই সময়ে মৃতদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৭০ জন ঢাকা বিভাগের, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬২ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩৪ জন খুলনা বিভাগের। এছাড়া রাজশাহী বিভাগে ২১ জন, সিলেট বিভাগে ১৮ জন, রংপুর বিভাগে ১৬ জন, বরিশাল বিভাগে ৯ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে গত গত ২৪ ঘণ্টায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ নিয়ে মৃত ২৩৭ জনের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ১৩৯ জন। এর মধ্যে ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সী ৭৮ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছর বয়সী ৪৫ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছর বয়সী ১৫ জন ও ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সী ছিলেন এক জন।

এছাড়া ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ৪৪ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ৩৪ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ১১ জন ও ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী ৯ জন জন মারা গেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়। ২০ বছরের কম বয়সী ও একশ বছরের বেশি বয়সী কেউ এই সময়ে মারা যাননি।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে একদিনে সর্বোচ্চ নমুনা পরীক্ষারও রেকর্ড হয়েছে। নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৫৬ হাজার ১৫৭টি, পরীক্ষা হয়েছে ৫৩ হাজার ৮৭৭টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসের মোট নমুনা পরীক্ষা হলো ৭৬ লাখ ১২ হাজার ৫৮৮টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ১২ শতাংশ। আর এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংক্রমণ শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৯১ শতাংশ।

আরএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...