chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

চট্টগ্রাম নগরে ফাঁকা সড়কে রিকশার দাপট

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম নগরীতে দ্বিতীয় দিনেও পালিত হচ্ছে সরকার ঘোষিত ‘কঠোর বিধি-নিষেধ’। শনিবার (২৪ জুলাই) বিধিনিষেধ যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা মাঠে কাজ করতে দেখা গেছে। নগরীর বেশিরভাগ রাস্তাঘাট ফাঁকা দেখা গেছে। গণপরিবহন না চললেও নগরীতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে রিকশা।

চট্টগ্রাম নগরে ফাঁকা সড়কে রিকশার দাপট
চট্টগ্রাম সিটি গেইট এলাকায় স্থায়ী চেকপোস্ট বসিয়ে চলছে সেনা সদস্যদের তল্লাশি। আলোকচিত্রী এম ফয়সাল এলাহী

বৈরি আবহাওয়া নগরীতে সকাল থেকে সেনাবাহিনীকে শাহ আমানত সেতু ও মইজ্জারটেক , সিটি গেট এলাকায় দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।

আজও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চট্টগ্রাম নগরীতে দায়িত্ব পালন করছেন।

শনিবার সকালে চট্টগ্রাম নগরীর আন্দরকিল্লা, জামালখান, চকবাজার, লাভলেইন, কাজীর দেউড়ী ও নতুন ব্রিজ এলাকা ঘুরে দেখা গেছে দোকানপাট বন্ধ। তবে মূল সড়কে স্বল্প সংখ্যক রিকশা চলাচল করতে দেখা গেছে।

চট্টগ্রাম নগরে ফাঁকা সড়কে রিকশার দাপট
নগরীতে লকডাউনের মধ্যে নানা কাজে সড়কে বের হওয়া গাড়িতে তল্লাশি চালায় ট্রাফিক পুলিশ। আরোহীদের কাগজপত্র যাচাই করে দেখা হচ্ছে। নগরীর লালখান বাজার থেকে ছবিটি তুলেছেন আলোকচিত্রী এম ফয়সাল এলাহী

নগরীর প্রবেশপথ সিটি গেট ও নতুন ব্রিজ (শাহ আমানত সেতু) এলাকায় সরকারি বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে কাজ করছে সেনাবাহিনী। এছাড়া চট্টগ্রাম নগরীতেও সেনাবাহিনী টহল দিতে দেখা গেছে। জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া মানুষকে পায়ে হেঁটে চলাচল করতে দেখা গেছে। তবে বেশিরভাগ রাস্তাঘাট ফাঁকা দেখা গেছে। জরুরি প্রয়োজনে বের হচ্ছেন কেউ কেউ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) শ্যামল কুমার নাথ বলেন, সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে আজও সকাল থেকে পুলিশ সদস্যরা মাঠে কাজ করছেন। নগরীতে মোট ২০টি স্থানে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। গাড়ি চেক করে দেখা হচ্ছে। যারা জরুরি প্রয়োজন কাজে বের হয়েছেন তাদের চলতে দেওয়া হচ্ছে। আর বিনা কারণে বের হলে ফেরত পাঠানো হচ্ছে।প্রথম দিনে ৯৬ মামলা হয়েছে। 

চট্টগ্রাম নগরে ফাঁকা সড়কে রিকশার দাপট
নগরীর লালখান বাজার এলাকায় স্থায়ী চেকপোস্ট বসিয়ে চলছে পুলিশ সদস্যদের তল্লাশি। আলোকচিত্রী এম ফয়সাল এলাহী

এর আগে শুক্রবার কঠোর বিধি-নিষেধের প্রথম দিনে নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ৯৬টি মামলা ও ২৬ হাজার ২৫০ টাকা জরিমানা করেছেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা। জেলা প্রশাসনের ১৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নগরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এসব মামলা ও জরিমানা আদায় করেন।

এসএএস/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...