chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

লামায় করোনায় অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু  

নিজস্ব প্রতিবেদক: ম্যালেরিয়া ও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বান্দরবানের লামা উপজেলায় উম্রানু মার্মা (১৭) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু হয়েছে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে শনিবার সকালে মারা যান তিনি। মৃত নারীর দেহে করোনা পজিটিভ ও ম্যালেরিয়া রোগের সংক্রমণ ছিল বলে নিশ্চিত করেন বান্দরবান সিভিল সার্জন অং শৈ প্রু মার্মা।

উম্রানু মার্মা উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ধুঅং পাড়ার বাসিন্দা ধুংক্য মার্মার স্ত্রী। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা মৃত নারীর সৎকার সম্পন্ন করেন।

মৃত গৃহবধূর স্বামী ধুংক্য মার্মা জানান, প্রচন্ড জ্বর অনুভব হলে গত ৬ জুলাই উম্রানু মার্মাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ সময় পরীক্ষায় তার শরীরে ম্যালেরিয়া ও টাইফয়েড় রোগ ধরা পড়ে।

এরপর অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য দায়িত্বরত চিকিৎসকরা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করেন। সেখানে ভর্তির পর উম্রানু মার্মার নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠালে রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ আসে।

পুনরায় সেখান থেকে নিয়ে উম্রানু মার্মাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন স্বজনেরা। এক পর্যায়ে শনিবার সকাল সোয়া ৬টার দিকে উম্রানু মার্মা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

খবর পেয়ে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের অর্গানিয়ার মো. পারভেজ মাসুদের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবীর একটি টিম স্বাস্থ্যবিধি মেনে শনিবার বিকালে ওই গৃহবধূর সৎকার কাজ সম্পন্ন করেন।

এসময় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ছাচিংপ্রু মার্মা ও সদস্যসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। শুধু তাই নয়, দাফন সম্পন্নের পর মৃতের পরিবার ও প্রতিবেশীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন স্বেচ্ছাসেবীরা।

রুপসীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ছাচিংপ্রু মার্মা জানান, বিষয়টি জানার পর উপজেলার সরই ইউনিয়নস্থ কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবীদের খবর দিই। তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে গৃহবধূ উম্রানু মার্মার সৎকার কাজ সম্পন্ন করেছেন।

আরএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...