chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

হালদায় হাটহাজারী ইউএনও’র শেষ অভিযানে সচেতনতামূলক সাইনবোর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিজের শেষ ও ১৭৮তম অভিযানে মঙ্গলবার দক্ষিণ এশিয়ার রুই, কাতলা, মৃগেল, কালিবাউশ জাতীয় মা মাছের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র এবং বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ হালদা নদী রক্ষায় হালদার বিভিন্ন কোমে জনসচেতনতামূলক সাইনবোর্ড স্থাপন করেছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ রুহুল আমিন।

যোগদানের পর হতে হালদায় ১৭৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে হালদায় অবৈধভাবে বসানো ৩,০৩,৪০০ মিটার ঘেরা জাল জব্দ ও ঘেরা জাল বসানোর কাজে নিয়োজিত ৬টি নৌকা ধ্বংস করেছেন তিনি।

পাশাপাশি অবৈধভাবে হালদা থেকে বালি উত্তোলনের কাজে ব্যবহৃত ১৫টি ড্রেজার এবং ৫৩টি ইঞ্জিন চালিত নৌকা ধ্বংস করেছেন। সেই সাথে অবৈধভাবে তোলা ১,১৫,০০ ঘনফুট বালি জব্দ করে নিলামে বিক্রি করেছেন।

বিভিন্ন সময় নগদ ১,৬৬,০০০ টাকা জরিমানা আদায় এবং ৩ ব্যক্তিকে ১ মাস করে কারাদন্ড দিয়েছেন। হালদা দূষণের দায়ে হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের যৌথ উদ্যোগে ১০০ মেগা ওয়াট পাওয়ার পিকিং প্লান্ট ও এশিয়ান পেপার মিল বন্ধ করা হয়েছে।

হালদায় নিজের শেষ অভিযান শেষে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ রুহুল আমিন জানান, মা মাছ শিকার বন্ধে হালদা নদীর বিভিন্ন কুমে জনসচেতনতামূলক সাইনবোর্ড স্থাপনের অংশ হিসেবে অংশ হিসেবে আজ সাত্তারঘাট কুম, নয়াহাট কুমে সাইনবোর্ড স্থাপন করা হয়েছে, দুই একদিনের মধ্যেই মাছুয়াঘোনা কুম এবং রামদাস মুন্সির হাট কুমেও সাইনবোর্ড বসানো হবে।

এসময় তিনি বাংলাদেশের মহামূল্যবান সম্পদ হালদা রক্ষায় হালদার দুই পাড়ের মানুষদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

এসএএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...