chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা

হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে পেঁয়াজের দাম। দেশে পেঁয়াজের মৌসুমের মাঝামাঝি পর্যায় হলেও গত তিন সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে ৬২-৭১%। সপ্তাহের ব্যবধানে এর দাম বেড়েছে ৫০ টাকা পর্যন্ত।

গেল শুক্রবার যে মানের পেঁয়াজ কেজিপ্রতি ৮০ টাকা বিক্রি হয়েছে, তা এখন ১২০ টাকা। যে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল ৯০ টাকায়, সেটা এখন ১৩০ টাকা। কোথাও কোথাও বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকাও। জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৭০-৮০ টাকা কেজি, যা জানুয়ারি শেষ দিকে ছিল ১০০ টাকা।

এরপর ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম ছিল ১০৫-১১০ টাকা কেজি। শুক্রবার প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম লাফিয়ে হয়েছে ১২০ টাকা। শনিবার খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ১৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। ফলে মাত্র ২১ দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা।

এক পেঁয়াজ ব্যবসায়ী পাবনা থেকে পাইকারি দরে পেঁয়াজ কিনে খুচরা বিক্রি করেন। তিনি বলেন, গত সপ্তাহে পাবনায় ৮০ থেকে ৮৫ টাকা কেজি দরে পাইকারিতে এবং  খুচরা ১০০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন তিনি। গত সপ্তাহে প্রতি মণ (৪০ কেজি) পেঁয়াজ ৩,২০০ থেকে ৩,৪০০ টাকায় কেনা হলেও এখন পাবনায় ৩,৮০০-৩,৯০০ টাকায় কিনতে হয়েছে।

তিনি বলেন, “নতুন মুড়িকাটা পেঁয়াজ তোলা শেষ পর্যায়ে। প্রায় দেড় মাস আগে এসব পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করেছে, আর এখন কৃষকের পেঁয়াজ শেষের দিকে।

ব্যবসায়ীদের ভাষ্য, মুড়িকাটা পেঁয়াজ একেবারেই শেষের দিকে হওয়ায় সরবরাহ কমে গেছে বাজারে। এই দাম বাড়ার প্রবণতা আরো কয়েক দিন থাকবে। এরপর হালি পেঁয়াজ উঠতে শুরু করলে দাম অনেক কমে যাবে।ফলে সরবরাহ কমতে শুরু করে এবং চাহিদার তুলনায় সরবরাহ না থাকায় হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায় ।

এখন কৃষকের প্রধান পেঁয়াজ বা হালি পেঁয়াজ যা সারা বছর পাওয়া যায় সেই ফসল তুরতে আরও কিছুটা সময় লাগবে। ততদিন পর্যন্ত বাজারে এ ধরনের বাড়তি দাম থাকতে পারে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

 

 

 

মআ/চখ

 

 

এই বিভাগের আরও খবর