chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

৭ দিন মৃত্যুর সাথে লড়ে অবশেষে হেরে গেল মেহরাজ

সীতাকুণ্ডে মোটরসাইকেল-লরীর সংঘর্ষ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ফৌজদারহাটস্থ শুকতারা পার্কের সামনে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে সাতদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে হেরে গেলেন ২২ বছরের যুবক মেহরাজ ভুঁইয়া।

আজ মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মৃত্যু বরণ করেন। তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাড়বকুণ্ড ইউপি চেয়ারম্যান ছাদাকাত উল্লাহ মিয়াজী।

তিনি বলেন, মেহরাজ ভূইয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন। এছাড়া সে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্র ছিল। মোটর সাইকেলের সাথে একটি লরীর ধাক্কায় আহত হওয়ার ৭দিন পর মঙ্গলবার সকালে ঢাকার একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বন্ধুদের সাথে দিনভর পতেঙ্গা সি বিচে জমিয়ে আড্ডা দেয়ার পর রাতে নিজেই মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন সীতাকুণ্ড উপজেলার বাড়বকুণ্ড ইউনিয়নের নডালিয়া গ্রামের হারুন ভূইয়া বাড়ীর হুমায়ুন ভূইঁয়ার ছেলে মেহরাজ ভুঁইয়া।

তবে দুর্ভাগ্য তার। বাড়ি নয় তাকে যেতে হয়েছে হাসপাতালে। ফেরার পথে ফৌজদারহাটস্থ শুকতারা পার্কের সামনে লরীর সাথে সংঘর্ষে সে গুরুতর আহত হন।

গুরুতর আহতাবস্থায় প্রথমে চট্টগ্রামে এবং অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দীর্ঘ ৭দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে সে মৃত্যু বরণ করেন।

চখ/আর এস

এই বিভাগের আরও খবর
Advertisements
×portlink