chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

জাপানে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে প্রবল বাতাস, বৃষ্টি

শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় নানমাডলের আঘাত থেকে রক্ষা পেতে জাপানের দক্ষিণাঞ্চলের অন্তত ৪০ লাখ মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রবল বাতাস এবং ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। চরম বৈরী আবহাওয়ার কারণে স্থলে যানবাহন এবং আকাশে বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

দক্ষিণ কিউশু অঞ্চলের কাগোশিমা, কুমামোতো, মিয়াজাকির বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। কাগোশিমা অঞ্চলের জন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে জাপানের আবহাওয়া বিভাগ।

 

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় টাইফুন নানমাডলকে ভয়াবহ উল্লেখ করা হয়েছে। মিনামি দাইতো দ্বীপের উত্তর-পূর্বে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থানের সময় ঘণ্টায় ২৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝড়ো বাতাস বইছিল।

আজ রবিবার কাগোশিমা অঞ্চলের উপকূলে ঝড়টি উঠে আসার পূর্বাভাস রয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বিভাগের প্রধান রিউতা কুরোরা সংবাদিকদের জানিয়েছেন, শক্তিশালী ঝড়, উঁচু ঢেউ এবং রেকর্ড বৃষ্টি হতে পারে। এজন্য দ্রুত ওই এলাকা ছেড়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়টি কিউশুতে আঘাত হানার পর ভূমিধস হতে পারে বলে জাপানের  আবহাওয়া বিভাগ সতর্ক করে দিয়েছে। পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, নানমাডল পূর্বদিকে ঘুরে মঙ্গলবার টোকিও পৌঁছাতে পারে।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ কিউশুতে বসবাসরত ৪০ লাখ মানুষকে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দ্বীপটিতে ৫০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত এবং ঘণ্টায় ২৫০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইতে পারে।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এখন পর্যন্ত বড় কোনো ক্ষয়ক্ষতি বা কোনো হতাহতের খবর জানায়নি।
সূত্র: আলজাজিরা।

এই বিভাগের আরও খবর
Advertisements
×portlink