chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

আজ আরাম করে বাদাম খাওয়ার দিন

মুষলধারে বৃষ্টিতে ঘরে বসে বাদাম খাওয়া সঙ্গে আড্ডা, লুডু খেলা। দিনটি উপভোগ করার জন্য আর কিছুই লাগে না।

বাদাম শুধু ভেজেই নয়, ভর্তা বা মাখন বানিয়েও খাওয়া হয়। তবে আজ যত খুশি, যেভাবে খুশি বাদাম খেতে পারে।

আজ ১৩ সেপ্টেম্বর বাদাম দিবস। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে এই দিনটি জাতীয় বাদাম দিবস হিসেবে পালন করা হয়। বাদামের স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা সবাইকে মনে করিয়ে দিতেই এই দিবসের সূচনা।

১৭০০ শতকে উত্তর আমেরিকাতে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে ওঠে চিনাবাদাম। যদিও তখনো চিনাবাদাম বাণিজ্য শুরু হয়নি। আমেরিকার বিখ্যাত পি.টি.বার্নামের উদ্যোগে তার সার্কাস অনুষ্ঠানে প্রথম চিনাবাদাম ভাজা বিক্রি শুরু হয়। গরম গরম চিনাবাদাম ভাজা সেসময় খুবই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। বিশেষ করে স্টেডিয়ামের কাছে।

মানুষ খেলা দেখার সময় প্রচুর ভাজা বাদাম কিনতেন। বিভিন্ন বেসবেল গেমের সময়ও বিক্রি করা হতো বাদাম। তখন আমেরিকানরা অবসর কাটাতে বেসবল গেম খেলা দেখতেন। ১৯০৪ সালে সেন্ট লুইস ওয়ার্ল্ড ফেয়ারে চিনাবাদাম দিয়ে মাখন খাওয়ার চল শুরু হয়।

এখনো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চিনাবাদামের ব্যাপক লাভজনক ব্যবসা। বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চিনাবাদাম খামারের মূল্য প্রায় এক বিলিয়ন ডলারেরও বেশি।

যাক বাদামের সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্কের কিছু অজানা তথ্য-

>> মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দুজন রাষ্ট্রপতি টমাস জেফারসন এবং জিমি কার্টার। যারা একসময় চিনাবাদাম চাষ করতেন।

>> মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ছয়টি শহরের নামের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে চিনাবাদাম। যেমন- পিনাট ক্যালিফোর্নিয়া, পিনাট পেনসিলভানিয়া, লোয়ার পিনাট, পেনসিলভানিয়া; আপার পিনাট, পেনসিলভানিয়া; পিনাট টেনেসি এবং পিনাট পশ্চিম ভার্জিনিয়া।

>> একটি আমেরিকান পরিবারের শিশুরা বছরে গড়ে প্রায় ১ হাজার ৫০০ পিনাট বাটারের জার শেষ করে।

>> একটি পরিসংখ্যানে দেখা যায় যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৯৪ শতাংশ পরিবার প্রতিদিন চিনাবাদামের মাখন খায়।

>> একটি চিনাবাদামের মাখন বা পিনাট বাটারের ১২ আউন্সের জার তৈরি করতে লাগে ৫৪০ গ্রাম চিনাবাদাম।

শুধু আমেরিকাতেই নয়, সারাবিশ্বে আছে এর জনপ্রিয়তা। মিষ্টি খাবার পরিবেশন, বাটার কিংবা ভেজে বাদাম খাওয়ার চল আছে অনেক দেশেই। তেমনি আমাদের দেশে বাদামের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। চিনাবাদাম যেমন সহজলভ্য তেমনি দামেও সস্তা। ছোট খিদের বড় সমাধান এক মুঠো বাদাম। এর স্বাস্থ্য উপকারিতাও অনেক বেশি।

এই বিভাগের আরও খবর
Advertisements
×portlink